রাশেদুল হক নয়ন
বাঘা (রাজশাহী)প্রতিনিধি:

রাজশাহীর বাঘায় জমি নিয়ে দুই ভাইয়ের দ্বন্দের বিরোধের জের ধরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে সাহাবুদ্দিন (৫৮) নামের একজন নিহত ও ২ জন আহত হয়েছেন। শনিবার (২৯মে) সকাল ১০টার দিকে বাঘা পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কলিগ্রাম (কাজী পাড়ায়) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা যায়,নিহত সাহাবুদ্দিন ও তার ভাই সাজদার মন্ডলের বসবাসের বাড়ির জমির পরিমাণ প্রায় ৫৩ শতক জমি রয়েছে। এ জমির মালিকানা ও দখল নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তাঁদের মধ্যে বিবাদ চলে আসছিল। এই বিবাদের জের ধরেই ১০টার সময় উভয় পরিবারের মধ‍্যে তর্ক-বিতর্ক এক পর্যায়ে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়।এই সংঘর্ষে ছোট ভাই সাজদার মন্ডল এবং এবং তার দুই মেয়ে ও স্ত্রী মিলে বড় ভাই সাহাবুদ্দিনকে মারপিট করে।এতে তিনি সঙ্গাহীন হয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন সাহাবুদ্দিনকে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ‍্য কেন্দ্রে নিয়ে আসে।

বাঘা উপজেলা স্বাস্থ‍্য কমপ্লেক্স এর কর্ত্যবরত চিকিৎসক ডাঃরিফায়েত হোসেন তাকে মৃত ঘোষণা করেন।এ ঘটনায় সাজদার মন্ডল ও তার স্ত্রী রুবিনা আহত হয়েছে।

আহত ব্যক্তিদের মধ্যে নিহত সাহাবুদ্দিনের আপন ভাই সাজদার মন্ডল(৫০),সাজদার মন্ডলের স্ত্রী রুবিনা (৩৮)।আহতদের বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।আহত ব্যক্তিদের বাড়ী কলিগ্রাম (কাজী পাড়া) গ্রামে।

নিহত সাহাবুদ্দিনের স্ত্রী সালমা বেগম সাংবাদিকে কান্না কন্ঠে বলেন,পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে আমার স্বামীকে মারপিট করে হত‍্যা করেছে আমার দেবর সাজদার মন্ডল ও তার স্ত্রী রুবিনা ও দুই মেয়ে সুমনা-মহনাসহ চাচী শ্বাশুড়ী হামিদা।এ বিষয়ে তিনি বাদী হয়ে বাঘা থানায় একটি হত‍্যা মামলার অভিযোগ জমা দিয়েছে বলেও জানান।

এই ঘটনার বিষয়ে নিহতের ছোট ভাই সাজদার মন্ডল দাবি করেছেন,বড় ভাইয়ের দুই ছেলে আমাকে মারপিট করে রক্তাক্ত করে।আর দৃশ‍্য দেখেই ষ্টোক করে মারা যান।

বাঘা অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মোয়াজ্জেম হোসেন জানান।লাশ রামেক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।এ বিষয়ে একটি হত্যা মামলা হয়েছে। হত্যা মামলায় ২জনকে আটক করে বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *