মোঃ তারিক হোসেন, চারঘাট রাজশাহী প্রতিনিধিঃ

করোনার ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে বুধবার (১৪ এপ্রিল) থেকে সারা দেশের ন্যায় রাজশাহীর চারঘাটেও শুরু হয়েছে এক সপ্তাহের সর্বাত্মক লকডাউন। এই লকডাউন মানাতে যথেষ্ট তৎপর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

তবে উপজেলার প্রধান প্রধান এলাকা ছাড়াও আজ ইউনিয়ন পর্যায়ে তৃণমূল বাজার গুলোতে পুলিশের তৎপরতা লক্ষ্য করা গেছে। কঠোর লকডাউনের পঞ্চম দিনে বিভিন্ন অজুহাতে যে সব মানুষ বাড়ির বাইরে বের হচ্ছেন তাদেরকে পুলিশি জেরার মুখে পড়তে হচ্ছে।

এদিকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া লকডাউনে মানুষের ঘর থেকে বের হওয়া নিষেধ থাকলেও নিম্ন আয়ের মানুষ অনেকে রাস্তায় নেমেছেন। যানবাহন না থাকলেও রাস্তায় বেশকিছু রিকশা-ভ্যান ও মোটরসাইকেল চোখে পড়েছে। আবার অনেক মানুষকে পায়ে হেঁটে নিজ নিজ গন্তব্যে পৌঁছাতে দেখা গেছে। বন্ধ রয়েছে দোকানপাট।

সকাল ১১টার দিকে ইউসুফপুর, নিমপাড়া, শলুয়া, চারঘাট, সারদা ও ভায়ালক্ষীপুর সব ইউনিয়নে পুলিশি তৎপরতা ছিল চোখে পড়ার মতো। যানবাহন বন্ধ থাকায় রিকশা-ভ্যানে করে যেসব মানুষ প্রয়োজনীয় কাজে যাচ্ছে। পুলিশ তাদের থামিয়ে জিজ্ঞাসা করছেন কোথায় যাচ্ছেন, কেন যাচ্ছেন। সদুত্তর না পাওয়ায় অনেককেই ভ্যান থেকে নামিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

এ সকল বিষয়ে ৫নং চারঘাট ইউনিয়ন বিটের এস আই মোঃ সাইদুল ইসলাম জানান, দেশকে করোনার হাত থেকে রক্ষার স্বার্থে সরকারের নির্দেশে সারাদেশে লকডাউন চলছে। যে কোন ভাবেই হোক সরকার ঘোষিত লকডাউন বাস্তবায়ন করতে চারঘাট মডেল থানা পুলিশ সদা সচেষ্ট রয়েছে।করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় সরকার এই লকডাউন ঘোষণা করেছে। তাই সকলকে অন্তত পক্ষে নিজেদের সুরক্ষার স্বার্থে লকডাউন মেনে চলার আহবান জানান তিনি।

চারঘাট মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ, মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সর্বাত্মক লকডাউন কার্যকর করতে আমাদের পুলিশ সদস্যরা সব সময় তৎপর রয়েছেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *