বাগমারা (রাজশাহী)প্রতিনিধিঃ “পুলিশ জনতা হাতে হাত, অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ” এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে জনগণের মাঝে পুলিশের সেবা পৌঁছে দিতে বিশেষ ভুমিকা পালন করে যাচ্ছে রাজশাহী বাগমারা উপজেলার হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ও রাজশাহী জেলার দুই দুইবারে শ্রেষ্ঠ ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম। তিনি বাগমারা থানার হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে যোগদানের পর থেকেই মাদক নিয়ন্ত্রন ও সব ধরনের অপরাধ রোধসহ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। যার কারণে তিনি রাজশাহী জেলার দুইবারের শ্রেষ্ঠ ইনচার্জ ও নির্বাচিত হয়েছেন। হাটগাঙ্গোপাড়াবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রকে দালাল ও তদবির মুক্ত করা। তার ধারাবাহিকতা হাটগাঙ্গোপাড়াবাসীর কথা মাথায় রেখে রাজশাহী জেলার শ্রেষ্ঠ ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম তার সাহসী কঠোর ভূমিকা পালন করে হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রকে তিনি তদবির ও দালাল মুক্ত করেছেন। যার কারণে অসহায় গরীব ভোক্তভোগী মানুষেরা সহজে পুলিশের সেবা পেতে পারে। হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ও জেলার শ্রেষ্ঠ ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম আবেগঘনকন্ঠে বলেন, এসব ভালো কাজ গুলো করতে গিয়ে অনেক কালপিঠদের কাছে খারাপ মানুষ সাজিতে হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এসব কালপিঠ দালালেরা দেশ ও জাতির শক্র, এরা সুযোগ পেলে ছোবল মারবো তাই এদের থেকে সাবধান। অনুসন্ধানে জানা যায়, বাগমারা থানার হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আশেপাশের মাদক সেবনকারী ও মাদক ব্যবসায়ী গডফাদাররা গত কয়েক বছর যাবত প্রশাসনের নাকের ডগায় ফেন্সিডিল, ইয়াবা সহ নানান মাদকদ্রব্যের রমরমা ব্যবসা চালিয়ে আসলেও রহস্য জনক কারণে অধিকাংশই মাদক সেবনকারী ও মাদক ব্যবসায়হিরা আটকের বাইরে ছিলো।

কিন্তু হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম রাজশাহী বাগমারা উপজেলার হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে যোগদান করার পর থেকে মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণার পাশাপাশি মাদক ব্যবসায়ী গডফাদারদের আটকের জন্য সাড়াশি অভিযান পরিচালনা করেন। পাশাপাশি তিনি এলাকায় বিভিন্ন ধরনের অপরাধ চুরি, ছিনতাই,নারীদের হয়রানি রোধসহ বিশেষ ভুমিকা পালন করেন।

তার এইসব সার্বিক সাহসী তৎপরতার কারণে হাটগাঙ্গোপাড়াবাসির জনমনে প্রশান্তি ফিরেছে। তার একের পর এক মাদক সম্রাটদের আটকের পর সাধারন মানুষ সস্তি প্রকাশ করেছে। এলাকার সচেতন মহল সব সময়ই মাদকের বিরুদ্ধে এরকম জিরো টলারেন্স আশা করেন। বাগমারা হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে এই প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ও রাজশাহী জেলার দুইবারের শ্রেষ্ঠ ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, বাগমারা উপজেলার হাটগাঙ্গোপাড়ার বাসীর গর্ব করার মত অনেক কিছু আছে। কিন্তু তার মধ্যে,কিছু অসাধু মাদক ব্যবসায়ীদের কারনে বাগমারাসহ হাটগাঙ্গোপাড়ার সুনাম নষ্ট হচ্ছে।

আর তিনি এজন্য সব সময়ই মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স দেখাতে চান। তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে পুলিশের তৎপরতার কারনে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া পূর্বের ন্যায় এখন আর প্রকাশ্যে নারীদের ইভটিজিং, চুরি, চালকদের আহত করে মোটর সাইকেল ছিনতাইয়ের মত ঘটনাগুলো আর নেই। গর্ব করার মত হাটগাঙ্গোপাড়া গড়তে তিনি সাংবাদিক এবং সচেতন বাগমারাবাসীসহ হাটগাঙ্গোপাড়াবাসীর কাছে থেকে সুষ্ঠ ও সুপরিকল্পিত দিক নির্দেশনা আশা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *