নলডাঙ্গা (নাটোর) প্রতিনিধিঃ
নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার ৫ নং বিপ্রবেলঘড়িয়া ইউনিয়নের হরিদাখলসী গ্রামের কৃষক মোঃ রইচ উদ্দিন সোনারের রাতের আধারে ১২ শতাংশ জমির অর্ধেকের বেশি ধান চুরি করে, কেটে নিয়ে গেছে,হরিদাখলসী চক কেশবপুরের মোস্তফা প্রামাণিক মোস্তু।

ভুক্তভোগী রইচ উদ্দিন বলেন,আমি ১২ শতাংশ জমি সোহেল রানার কাছ থেকে বন্ধক নিয়ে তাতে ধান চাষ করি। ধান কাটার উপযুক্ত হলে গতকাল দিবাগত রাতে মোস্তু প্রাং তা কেটে নিয়ে আসে। এ বিষয়ে তিনি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে বিচার দেন।

অভিযুক্ত মোস্তু প্রাং কে বাড়িতে না পাওয়া গেলে তার পুত্র বধু উক্ত জমি তাদের দাবি করে, দায় স্বীকার করে বলেন, আমার শশুর ধান কেটে এনেছে।

জমির মালিক সোহেল রানা জানান,চক কেশবপুর মৌজার উক্ত জমির খাজনা,খারিজ সহ সমস্ত বৈধ কাগজ আমার রয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসী মোয়াজ্জেম হোসেন মজনু ও গফুর সরদার বলেন মোস্তু প্রাং সব সময় মানুষের সাথে বিবাদ সৃষ্টি করে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক জানান,ভুক্তভোগী রইচ উদ্দিন আমাকে জানানোর পরে আমি সরেজমিনে তদন্ত করে, ঘটনার সত্যতা পাই এবং মোস্তুকে ডাকলে সে ডাকে সাড়া দেয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *