সোহেল হোসেন লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ
ক্ষেতজুড়ে পাকা আমন ধান কাটার মহোৎসব চলছে সর্বত্র। এ সময় লকডাউনের ফলে দেখা দিয়েছে শ্রমিক সংকট। ৪৫ শতাংশ জমির পাকা ধান নিয়ে বিপাকে ছিলেন কৃষক আলমগীর মাঝি। এছাড়াও আর্থিক সংকটে সাময়িক বিপর্যস্তও ছিলেন তিনি।
এ পরিস্থতিতে এগিয়ে এলেন লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলা যুবলীগের নেতাকর্মীরা।
শনিবার (২৪ এপ্রিল) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রায়পুর উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক মামুন বিন জাকারিয়া, যুগ্ম-আহ্বায়ক কৌশিক সোহেল, তারেক আজিজ জনি ও জহির পাটোয়ারীসহ ১২ জন নেতাকর্মী আলমগীরের ক্ষেতের ধান কেটে মাড়াই করে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন। এ সময় কৃষক আলমগীরের পরিবারের সদস্যদের জন্য ইফতারসামগ্রী ও উপহার দেন তারা।

যুবলীগ সূত্র জানায়, আলমগীর দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা ও পেশায় কৃষক। করোনাকালীন তিনি অর্থনৈতিকভাবে সাময়িকভাবে বিপর্যস্ত রয়েছেন। এবার তিনি ৪৫ শতাংশ জমিতে ধান চাষ করেন। শ্রমিক সংকটে ক্ষেতের পাকা ধান কাটা নিয়ে বিপাকে পড়েছেন তিনি।
কৃষক আলমগীর হোসেন বলেন, পকেটে টাকা নেই। ধান কাটতে শ্রমিকও পাচ্ছিলাম না। পরে যুবলীগের কয়েকজনকে আমি বিষয়টি জানাই। তারা আমার কাজটি করে দিয়েছেন। সঙ্গে টাকা ও এক মাসের খাদ্যসামগ্রীও উপহার দিয়েছেন।
যুবলীগ নেতা মামুন বিন জাকারিয়া বলেন, করোনাকালীন অনেক কৃষক আর্থিকভাবে বিপর্যস্ত রয়েছে। টাকার অভাবে ক্ষেতের ফসল ঘরে তুলতে পারছে না। সেসব কৃষকের পাশে দাঁড়ানের জন্য কেন্দ্র ও জেলা যুবলীগের নির্দেশনা রয়েছে। যুবলীগ অসহায় মানুষের সেবায় সদা প্রস্তুত রয়েছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *