লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি:

লক্ষ্মীপুর পৌর শহরে জমি-সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে হামলায় ২ জন আহত হয়েছেন। এ সময় লুট করে নেওয়া হয়েছে একটি মোবাইল ফোন। পৌর ১১নং ওয়ার্ড আটিয়াতলী গ্রামে আমান উদ্দিন হাজী বাড়িতে শনিবার এই ঘটনা ঘটে।
আহতদের উদ্ধার করে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি চিকিৎসা করা হয়েছে। তারা হলেন, সোহেল আলম, সোহাগ আলম।
আটিয়াতলী গ্রামের বাসিন্দারা বলেন, ওই গ্রামের আব্দুর রহিম গংদের সঙ্গে একই এলাকার আব্দুল মান্নান প্রকাশ মনা গংদের জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। তা নিয়ে এই ঘটনা ঘটেছে।
সাজেদা আক্তার তিন্নি বলেন, ৮৮নং আটিয়া মৌজার সাবেক ৪৬৪ নং খতিয়ানভুক্ত ১৯৯, ২০০, ২০৩, ২১৮, ও ২২০ দাগে ২.৩২ একর নালিশি ভূমি দখলদার মালিক আব্দুল রহিম গং কিন্তু এ জমি মালিকানা দখল থেকে বেদখল করার জন্য চেষ্টা করে আব্দুল মান্নান গংরা। তারা জমি থেকে গাছ পালা কেটে এবং নতুন করে বাড়ি নিমার্ণ চেষ্টা করলে, তাদের বিরুদ্ধে ৩৬৬/২০২১ মিছ মামলা দায়ের করেন আব্দুল রহিম গংরা। আদালতের নিষেধ অমান্য করে গত ১৪নভেম্বর দুপুরে আবারো জোর পূর্বক বাড়ি নিমার্ন শুরু করলে এতে রহিম গংরা বাধা দিলে তাদের এলোপাতাড়ি পিটিয়ে, মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। এতে ৯৯৯ তে ফোন করলে পুলিশ বাদী পক্ষ সোহেল আলম, এবং বিবাদীর পক্ষের সোহাগ আলম, আবুল কাশেমকে পুলিশ গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করে।
অপর পক্ষ মনি বেগম বিরোধকৃত জমি তাদের দাবি করেন।
সোমবার এই বিষয়ে লক্ষ্মীপুর শহর পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক কাউসার আহম্মদ জানায়, জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে সংঘাত সৃষ্টি করায় দুই পক্ষকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply