সোহেল হোসেন
লক্ষীপুর জেলা প্রতিনিধি:

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে জমি নিয়ে বিরোধে দুপক্ষের তর্ক ও হাতাহাতির জের ধরে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। তাঁর নাম আবদুল গফুর (৬০)। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার উত্তর চরবংশী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। তিনি ওই গ্রামের কেরামত উল্যা মাতাব্বর বাড়ির বাসিন্দা।
জানা যায়, জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে মঙ্গলবার সন্ধ্যার আগে প্রতিবেশী মিলাই বাড়ির সোহেল বেপারী ও রাছেল বেপারীদের সঙ্গে আবদুল গফুরের কথা-কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। ওই সময় হঠাৎ করে তিনি অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যান। তাঁকে উদ্ধার করে রাত সাড়ে ৭টার দিকে হাসপাতালে নিয়ে আসার পথেই তিনি মারা যান।
বৃদ্ধের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৫০) ও ছেলে বিল্লাল হোসেন বলেন, সোহেল ও রাছেলের মারধরেই তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন। আমরা এ হত্যার বিচার চাই।
অভিযোগ অস্বীকার করে সোহেল বেপারী বলেন, ২৩ শতাংশ জমি নিয়ে উভয় পরিবারে বিরোধ চলছে। সন্ধ্যায় আমাদের মধ্যে কথাকাটাকাটির ঘটনা ঘটেছে। কোনো হাতাহাতি বা কেউ কাউকে আঘাত করিনি। তর্কের একপর্যায়ে তিনি হার্ট অ্যাটাক করে অজ্ঞান হয়ে যান। আমাদেরকে হয়রানির জন্যই তাঁরা হত্যার অভিযোগ আনার চেষ্টা করছেন।
রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাহমিনা বিনতে হুমায়ুন বলেন, মৃত অবস্থায় বৃদ্ধকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। তাঁর শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্ত ছাড়া মৃত্যুর সঠিক কারণ এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না।
রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল জানান, বৃদ্ধের মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সেখান থেকে প্রতিবেদন আসলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। এই ঘটনায় রাত ১০টা পর্যন্ত নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ দেওয়া হয়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply