সোহেল হোসেন লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:

লক্ষীপুর কমলনগর উপজেলার নিখোঁজের ৪ দিন পর ধানক্ষেত থেকে ৮ বছর বয়সি শিশু মো. জুনায়েদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার (১৭ জুলাই) দুপুরে উপজেলার চরললেঞ্চ ইউনিয়নের চরলরেঞ্চ গ্রামের একটি ধান ক্ষেত থেকে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। বন্ধুদের সঙ্গে খেলতে গিয়ে সে নিখোঁজ হয়েছিল।

জুনায়েদ উপজেলার তোরাবগঞ্জ ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের চা দোকানি শেখ কামালের ছেলে।

পরিবার সূত্র জানায়, চার ভাইবোনের মধ্যে জুনায়েদ তৃতীয়। সে বাবা-মায়ের সঙ্গে চরলরেঞ্চ গ্রামের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতো। গত ১৩ জুলাই একই এলাকার সাবেক চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন খোকনের ইটভাটায় বন্ধুদের সঙ্গে জুনায়েদ খেলছিল। এসময় কেউ একজন তাদেরকে ধাওয়া করে। এতে ইটভাটা থেকে সবাই পালিয়ে যায়। সেখান থেকে অন্যান্যরা বাড়িতে ফিরলেও জুনায়েদ ফিরেনি। পরে আত্মীয়-স্বজনের বাড়িসহ সম্ভাব্য স্থানে খুঁজেও তাকে পাওয়া যায়নি।পরদিন তার খোঁজে কমলনগরের বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করে প্রচারণা চালানো হয়। কিন্তু কোথাও কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।
এদিকে শনিবার সকালে ধানক্ষেতের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় ধানক্ষেতের পাশে জুনায়েদের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় কয়েকজন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পৌঁছে মরদেহ উদ্ধার করে। জুনায়েদের বাবা-মা গিয়ে মরদেহ শনাক্ত করে।
জুনায়েদের বাবা শেখ কামাল বলেন, আমার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনা আড়াল করার জন্য তার লাশ ধান ক্ষেতে ফেলে রেখেছে। পুলিশের তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে বিচার করার দাবি জানাচ্ছি। তবে কে বা কারা, কী কারণে হত্যা করেছে তা নিশ্চিতভাবে জানাতে পারেননি তিনি।
এ ব্যাপারে কমলনগর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাখন লাল রায় বলেন, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদেন্তর জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply