এস ইসলাম, নাটোর জেলা প্রতিনিধি:

নাটোরের লালপুর উপজেলা থেকে আবারও ৬ জন ইমো হ্যাকার আটক।

শুক্রবার (১১ জুন ২০২১) রাতে উপজেলার বিলমাড়ীয়া মোহরকয়া ও দুড়দুড়িয়া রামকৃষ্ণপুর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

র‌্যাব-৫, রাজশাহীর সিপিসি-২, নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মেজর সানরিয়া চৌধুরীর নেতৃত্বে একটি অপারেশন শুক্রবার রাতে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে উপজেলার মোহরকয়া ও রামকৃষ্ণপুর গ্রাম এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ ও ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ‘ইমো’ হ্যাকিং করে প্রতারণাপূর্বক অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে

১১ টি মোবাইল সেট, ২৫ টি সিমকার্ড, ৪ টি মেমোরীকার্ড, ৩ টি মোবাইল চার্জার, ২ টি গ্যাসলাইটার, ৩ পিচ ইয়াবা, ১ টি ইয়াবা সেবনের স্টীক, ১ টি ইয়াবা সেবনের কর্ক, নগদ তিন হাজার ৬৫০ টাকাসহ বিলমাড়ীয়া ইউনিয়নের মোহরকয়া পূর্বপাড়া গ্রামের মনিরুল ইসলামের ছেলে শুভ (২০), মৃত সামাদ মন্ডলের ছেলে আব্দুল আল মামুন (২৫), নাগশোষা গ্রামের মৃত জটু সর্দারের ছেলে রুবেল সর্দার (২২), শ্রী স্বপন সরকারের ছেলে শ্রী শোভন কুমার (২৩), এবং দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের রামকৃষ্ণপুর গ্রামের আশরাফ আলীর দুই ছেলে রুবেল (২৮) এবং শহিদুল ইসলামকে (৩০) গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতদের দুই ভাইকে অভিযান পরিচালনার সময় মাদক সেবনরত অবস্থায় পাওয়া যায়।

মেজর সানরিয়া চৌধুরীর জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় গ্রেপ্তারকৃতরা দীর্ঘদিন ধরে ইলেকট্রনিক ডিভাইস ও ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে প্রবাসীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ‘ইমো’ ব্যবহারকারীদের ইমো হ্যাক করে আসছিল। পরবর্তীতে তাদের পরিচিতজনদের নিকট হতে প্রতারণাপূর্বক মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেয়।

তিনি আরো জানান, গ্রেপ্তারকৃত ৬ জনের মধ্যে ২ জনকে অভিযান পরিচালনার সময় মাদক সেবনরত অবস্থায় পাওয়া যায়। তাদেরকে পরবর্তীতে লালপুর স্বাস্থ্য কমম্পেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইয়াবা সেবনকারী বলে মতামত প্রদান করে।

লালপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফজলুর রহমান জানান, গ্রেপ্তারকৃত ৬ জন ইমো হ্যাকারদের বিরুদ্ধে নাটোর জেলার লালপুর থানায় ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮’ এবং মাদকসেবী ২ জনের বিরুদ্ধে ‘মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১৮’ এ পৃথক দুইটি মামলা হয়েছে। আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে নাটোর জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *