এস ইসলাম, নাটোর জেলা প্রতিনিধি:

বহুল আলোচিত নাটোরের লালপুর উপজেলার বিলশলিয়া এলাকায় সরকারি এক কর্মকর্তা ও তার পরিবার কর্তৃক সরকারি খাস জমি দখল ও পানি প্রবাহের ব্রীজ সংলগ্ন স্থানে খননকৃত পুকুর ভরাটের নির্দেশ দিলেন নাটোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব) আশরাফুল ইসলাম।

বুধবার ০৫ মে বিকেলে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে এ নির্দেশ দেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন লালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ( ভারপ্রাপ্ত) শাম্মি আক্তার, উপজেলা সর্বেয়ার শাজাহান আলী।

পরিদর্শন শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি জানান, আমরা উপজেলা সার্ভেয়ারের মাধ্যমে পরিমাপ করে খননকৃত পুকুরের মধ্যে সরকারি খাস জায়গা পেয়েছি।

সরকারি জায়গায় অবৈধ ভাবে খননকৃত পুকুর এস্কেবেটর ( ভেকু) দ্বারা ভরাট করে দেয়া হবে।

তিনি লালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে উপস্থিত থেকে পুকুর ভরাট করার নির্দেশ দেন।

৬ মে বৃহস্পতিবার সকালে লালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ( ভারপ্রাপ্ত) শাম্মি আক্তার উপস্থিত থেকে পুকুর ভরাটের কাজ শুরু করেন।

উল্লেখ্য রাজশাহীর বাগমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরিফ আহমেদ লিংকন,তার পিতা ও ভাই উপজেলার ওই এলাকায় ব্রীজের সামনে ও সরকারি খাস জায়গা দখল করে পুকুর খনন করেন।

এ বিষয়ে বিগত বেশ কিছু দিন ধরে দেশের বিভন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় খবর প্রচারিত হয়, এতে জেলা জুড়ে আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠে।

এছাড়া গত মঙ্গলবার ৪ মে উক্ত পুকুর ভরাট করতে মানববন্ধন করে শত-শত স্থানীয় কৃষকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *