মো:আজিজুর বিশ্বাস,লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি।

নড়াইলের লোহাগড়ার মধুমতি নদীতে গোসল করতে গিয়ে একজন শিশু মারা গেছে ।

লোহাগড়া ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরি দল দীর্ঘ বারো ঘন্টা অভিযান চালিয়ে শুক্রবার সকালে নদী থেকে ওই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে।

এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে ।

খোঁজ-খবর নিয়ে জানা গেছে , উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের পুরানো আমডাগা গ্রামের হোসেন আলীর মেয়ে আয়েশা তার আট বছর বয়সী শিশু কন্যা হামিদা খাতুনকে নিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে মধুমতি নদীর আজিমের ঘাটে গোসল করতে যায়।

গোসল শেষে আয়েশা বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেন । তখনো শিশু হামিদ নদীতে গোসল করছিল। এর কিছুক্ষণ পরেই হামিদা নদীতে ডুবে নিখোঁজ হয়। প্রায় আধা ঘন্টা পর শিশু হামিদার মা আয়েশা নদীর ঘাটে এসে হামিদার সন্ধান না পেয়ে ঘটনাটি এলাকাবাসীকে জানান।

খবর পেয়ে লোহাগড়া ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার মাসুদ রানার নেতৃত্বে একদল কর্মী এলাকাবাসীর সহযোগিতায় নদীতে উদ্ধার অভিযান চালিয়েও ডুবে যাওয়া শিশু হামিদার সন্ধান পায় নাই ।

সন্ধ্যায় খুলনা থেকে ডুবুরি দলের টিম লিডার বাশার তালুকদারের নেতৃত্বে পাচ সদস্যের একটি ডুবুরি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এবং অভিযান শুরু করে ।

কিন্তু বৃহস্পতিবার রাত দশটা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চললেও ডুবে যাওয়া শিশু হামিদার সন্ধান পাওয়া যায় নাই । শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯/টার দিকে ডুবুরি দল নদী থেকে শিশু হামিদার মরদেহ উদ্ধার করে।

নদীতে ডুবে শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় ওই এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *