মো.সোহেল রানা, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:
মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে পারিবারিক কলহে ইতি (২৮) নামক এক গৃহবধূ ফ্যানের সাথে ওরনা পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল রোববার সকাল ১০টার দিকে লৌহজং মালিঅ;ক বাজার মজিদ সংলগ্ন বেজগাঁও ইউনিয়ন ৩নং ওয়ার্ড শুনদিশা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় স্বামী শাহজাহানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, সকালে স্বামী শাহজাহান গরুর দুধ বিক্রি করতে বাজারে যায়। বাজার থেকে এসে সকাল ১১টার দিকেও দরজা বন্ধ থাকায় বাহির থেকে অনেক ডাকাডাকি করে। কিন্তু দরজা না খোলার কারণে জানালা ভেঙে দেখে ইতি ফ্যানের সাথে ওরনা পেঁচিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় আছে। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

এদিকে ইতির মা অভিযোগ করে বলেন, গত রাতে ফজরের আযানের সময় ইতি আমাকে কল করে জানান। তার স্বামী রাতে ঘুমের মধ্যে মারধর করে। পরে আমি মেয়েকে বলি সকাল পর্যন্ত দেখতে। আমি এসে কথা বলবো। তারপর সকাল ১১টার দিকে ওই বাসা থেকে কল আসে আমার মেয়ে ইতি আত্মহত্যা করেছে। তিনি আরও জানান, আমার মেয়েকে রাতে প্রায়ই মারধর করা হতো। এর আগে মারধর করার কারণে একবার বাসায়ও রাগ করে চলে এসেছিলো কিন্তু আমি আবারও বুঝি বাসায় দিয়ে এসেছি।

লৌহজং থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আলমগীর হোসাইন জানান, গত বছরের জুলাই মাসে বিবাহ হয় ইতি ও শাহজাহানের। শাহজাহান মানসিক ভারসাম্যহীন। তবে কাজ কর্ম করে। স্থানীয় মেম্বার আত্মহত্যার খবর দিলে। আমরা ঘটনাস্থলে আসি। পরে এসে লাশটি ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাই এবং স্থানীয়দের সহযোগিতায় লাশটি উদ্ধার করা হয়। পরে মেয়েটির মা রিনা বেগমের অভিযোগে স্বামী শাহজাহানকে গ্রেফতার করা হয়। এবং ময়নাতদন্তের জন্য লাশটিকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এদিকে গৃহবধূর মা রিনা বেগম বাদি হয়ে লৌহজং থানায় ৩০৬ ধারায় মামলা দায়ের করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *