আরিফুল ইসলাম ঝিনাইগাতী , শেরপুর প্রতিনিধি :

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে এক আদিবাসী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে মো. নাইম(১৯) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত নাইম উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের নওকুচি গ্রামের মৃত জহুরুল ইসলামের ছেলে।
এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, গত ১৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১১ ঘটিকার দিকে নাইম একই গ্রামের এক সন্তানের জননী বিধবা আদিবাসী নারীর বাড়ীতে প্রবেশ করে একা পেয়ে তাকে ধর্ষণ করে। বিষয়টি প্রকাশ করলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে নাইম। পরে ঘটনাটি জানাজানি হয়ে গেলে উপজেলার নওকুচি গ্রামে আলম মিয়ার বাড়ীতে ১৯এপ্রিল সোমবার দিবাগত রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্য রশিদ মিযার নেতৃত্বে আপোষ মিমাংশার চেষ্টা চলাকালীন সময়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঝিনাইগাতী থানার ওসি মোহাম্মদ ফায়েজুর রহমানের নেতৃত্বে এসআই সাজেদুল ইসলাম, কলিম উদ্দিন সহ সঙ্গীয় পুলিশ বাহিনী ধর্ষক নাইমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। এ ব্যাপারে ধর্ষিতা বাদী হয়ে থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন।
ওসি মোহাম্মদ ফায়েজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষক নাইমের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়েরের পর আজ ২০ এপ্রিল মঙ্গলবার তাকে শেরপুরের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *