কাকন সরকার ঃআসন্ন শেরপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত জেলা নির্বাচন অফিস শেরপুরের সম্মেলনকক্ষে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতীক বণ্টন করা হয়।

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ করেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ শানিয়াজ্জামান তালুকদার।

এ সময় উপস্থিত থেকে নির্বাচনী এ কার্যক্রমে অংশ নেন জেলা নির্বাচন অফিসের অন্যান্য কর্মকর্তারা ও শেরপুর পৌরসভা নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থীরা।

শেরপুর পৌরসভার নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী গোলাম কিবরিয়া লিটন নৌকা, বিএনপি প্রার্থী মামুনুর রশিদ পলাশ ধানের শীষ। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এডভোকেট রফিকুল ইসলাম আধার জগ, আওয়ামী লীগের আরেক বিদ্রোহী প্রার্থী আরিফ রেজা চামচ।

স্বতন্ত্র প্রার্থী আতাউর রহমান নারিকেল গাছ, আনোয়ারুল সাদাত সুইট মোবাইল ফোন, আল আমিন ক্যারম বোর্ড প্রতীক পেয়েছেন।

শান্তিপূর্ণ, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবি জানান প্রার্থীরা। আর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ শানিয়াজ্জামান তালুকদার গ্রহণযোগ্য নির্বাচন উপহার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করে প্রার্থীদের নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে নির্বাচনী প্রচারণা ও নির্বাচনী কাজকর্ম পরিচালনার অনুরোধ জানান।

একই দিন সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৫৪ জন প্রার্থী ও সংরক্ষিত আসনের ১৭ কাউন্সিলরের মাঝেও প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, শেরপুর পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৭৫ হাজার ৭৩৮ জন। আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারী ৯ টি ওয়ার্ডে মোট ৩৫ টি ভোট কেন্দ্রে ইভিএমে ভোট অনুষ্ঠিত হবে। এবারই প্রথম এ পৌরসভায় ইভিএমে ভোট গ্রহণ হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *