মিরু হাসান বাপ্পী
আদমদিঘী (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ
মহামারি করোনা আতঙ্কের মধ্যে বগুড়ায় শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে ঈদবাজার। শহরের রাস্তাঘাটসহ প্রতিটি মার্কেটে উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। কেনাকাটার ব্যস্ততায় ক্রেতা-বিক্রেতারা ভুলে গেছে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকির আশঙ্কা। এসব মানুষের কারও কারও মুখে মাস্ক দেখা গেলেও নেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোনো বালাই। জেলা শহর থেকে উপজেলা সব জায়গার চিত্র একই।

শহর ঘুরে বিভিন্ন মার্কেটের দোকান গুলোতে দেখা যায়, স্বাস্থ্যবিধি মানার শর্ত থাকলেও মানছেন না কেউই। বেশিরভাগ দোকানিদের মুখে মাস্ক নেই। বেশিরভাগ ক্রেতা মাস্কবিহীন। সব মিলিয়ে স্বাস্থ্যবিধি রক্ষার বালাই নেই।

অন্যান্য স্বাভাবিক ঈদের মতই দোকানগুলোতে উপচে পড়ছে ভিড়। সকাল থেকে মধ্যরাত অবধি চলছে বেচাকেনা। উচ্চবিত্ত থেকে নিম্নবিত্ত সবাই হামলে পড়ছে ঈদের কেনাকাটায়। জুতা, পোশাক আর কসমেটিকসের দোকানগুলোতে ক্রেতার উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। সুযোগ বুঝে দোকানিরাও জিনিসপত্রের দাম রাখছে চড়া। লকডাউনে মাল আসছে না এমন অজুহাতে বাড়ছে জিনিসপত্রের দাম।

অবস্থা এমন দাঁড়িয়েছে প্রশাসনের তেমন করার কিছু থাকছে না। রাস্তায় পুলিশের চেকপোস্ট রয়েছে। যানবাহন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চলছে, কিন্তু লাভ হচ্ছে না।

চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে এবারের ঈদের বেচাকেনা মন্দা হবে বলে ধারণা করেছিলেন ব্যবসায়ীরা। প্রথমদিকে এমন ভাবনা থাকলেও বাস্তবতা ভিন্ন। বিগত সব বছরগুলোর মতই ঈদ বাজার জমেছে সেই চিরচেনা রূপে। বরং ঈদ দোরগোড়ায় চলে আসায় করোনা ও লকডাউনের অজুহাতে বাড়তি দামে বেচাকেনা হচ্ছে। তৈরি পোশাক, শাড়ি-কাপড়, জুতাসহ প্রতিটি পণ্যসামগ্রীর দাম বেড়ানো হয়েছে। শঙ্কা থাকলেও শেষ পর্যন্ত বেচাকেনা ভালো হওয়ায় সন্তুষ্ট বিক্রেতারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *