আশাশুনি (সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি :
আশাশুনি উপজেলার শোভনালী ইউনিয়নে মাদক সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ ও যৌতুক বিরোধী আইন শৃংখলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (১৩ জানুয়ারি) বিকালে কামালকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আয়োজনে সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম। ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি প্রভাষক ম মোনায়েম হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে আলোচনা রাখেন, আশাশুনি থানার পুলিশ পরিদর্শন (তদন্ত) মাহফুজুর রহমান ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অসীম বরণ চক্রবর্তী। ইউনিয়ন আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় কুমার দাস ও সাংবাদিক এম এম সাহেব আলির সঞ্চালনায় সভায় আশাশুনি প্রেসক্লাব সভাপতি জি এম আল-ফারুক, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জি এম মুজিবুর রহমান, সাবেক সভাপতি এসএম আহসান হাবিব, ইউপি সদস্য দিলীপ কুমার মন্ডল, আলমগীর হোসেন, আঃ গফফার, উদয় কান্তি বাছাড়, ফারুক হোসেন, নজরুল ইসলাম, আঃ হান্নান, আজিজুল ইসলাম, মহিলা মেম্বার পূর্ণিমা রানী মন্ডল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথি এবিএম মোস্তাকিম বলেন, জাতির পিতার যোগ্য উত্তরসূরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যাই বলেন, তাই করেন। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, খোলা বাজারে সার বিক্রয়, বিধবা বয়স্ক প্রতিবন্ধী ও মাতৃত্বকালীন ভাতা, বছরের ১ম দিনে নতুন বই প্রদান, দেশের সকল সড়ক, প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নসহ সকল সেক্টরে অভূতপূর্ব উন্নয়ন করেছেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল, সোনার বাংলা গড়া, তাঁর স্বপ্ন বাস্তবায়নে নেতৃ সফলভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়ন, গৃহহীন ও ভূমিহীনদের জমি ও ঘর নির্মান করা হচ্ছে। প্রতিটি ঘরে ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকা ব্যয়ে শোভনালীর ১০০ পরিবারকে ঘর নির্মান করা হচ্ছে। ঘর পাইয়ে দেওয়ার নামে টাকা নেওয়া হচ্ছে এমন অভিযোগের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, অনিয়ম দুর্নীতির ঘটনা ঘটলে জানাবেন সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নৌকা প্রতীক শেখ হাসিনার প্রতীক, আমরা যতদিন বেঁচে থাকব, নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে যাব। ও সি তদন্ত মাহফুজুর রহমান বলেন, পুলিশ মানুষের মধ্যে কোন দূরত্ব থাকবেনা, থানাকে কাঙ্খিত সেবা দানের ক্ষেত্র তৈরিতে আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। যে কোন সমস্যায় সকলে থানায় গিয়ে সরাসরি ওসি ও তার সাথে কথা বলতে অনুরোধ জানান। জিডি করতে ও সেবা পেতে কোন টাকা লাগেনা ঘোষণা করে তিনি এলাকার মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও যৌতুক আদান প্রদানের ঘটনা ঘটলে থানাকে অবহিত করতে অনুরোধ জানান। চেয়ারম্যান মোনায়েম হোসেন বলেন, ইউনিয়নে সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। কিছু কুচক্রী চাঁদাবাজী ও হয়রানীর সাথে জড়িত অভিযোগ করে তিনি প্রশাসন ও উপজেলা চেয়ারম্যানের সহযোগিতা কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *