নিজস্ব প্রতিবেদক: সাতক্ষীরা শ্যামনগর উপজেলা সদরের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে আলমগীর হোসেন (৩০) নামের এক যুবককে অপহরণের পর সর্বস্ব লুটে নিয়েছে দুবৃর্ত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার ভোর রাত সাড়ে চারটার দিকে। এ ঘটনায় ভুক্তোভোগী আলমগীর হোসেন দুই জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত তিন/চার জনের বিরুদ্ধে শ্যামনগর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে।

শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আলমগীর জানায় গত ছয় মাস ধরে সে ঢাকার টাঙ্গাইল এলাকার ইট ভাটায় শ্রমিক সর্দার হিসেবে কর্মরত ছিল। মৌসুম শেষ করে গত বুধবার বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সে শ্যামনগর বাস টার্মিনালে পৌছায়। এসময় কোন যানবাহন না পেয়ে অপেক্ষা করার এক পর্যায়ে রায়হান ও আইয়ুব আনছারসহ ৩/৪ জন অপরিচিত ব্যক্তি এসে নির্দিষ্ট ভাড়ায় বাড়ি পৌছে দেয়ার কথা বলে ব্যাটারী চালিত ইজি বাইকযোগে উঠায়।

তিনি অভিযোগ করেন পার্শ্ববর্তী চন্ডিপুর এলাকায় পৌছে ইজি বাইক থেকে নামিয়ে তাকে সবাই মিলে মারধর করে কাছে থাকা এত দিনের জমানো বাষট্রি হাজার টাকা আর মুটোফোনসহ মুল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয়। এক পর্যায়ে তার চিৎকারে স্থানীয়রা বাড়ি থেকে রাস্তা বের হয়ে আসলে দুবৃর্ত্তরা তাকে ফেলে ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়।

এঘটনায় রায়হান ও আইয়ুব আনছারসহ অজ্ঞাত তিন/চার জনের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছেন বলেও তিনি জানান। প্রধান অভিযুক্ত রায়হান হোসেন জানান, টাকা পয়সা ও ফোনসহ কোন জিনিসপত্র ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেনি। ইতিপুর্বে সে আমাকে মারপিট করার সুত্র ধরে তাকে শাসন করা হয়।

শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাজমুল হুদা, জানান এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *