সুজন কুমার,নাটোর প্রতিনিধিঃ

নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল চামটা মশুরিপাড়া গ্রামের মোঃ গোলাম রসুলের ছেলে মোঃ নাজিম উদ্দিন(৩৫) আর্থিক চাহিদা পূরণের জন্য ওমানে পাড়ি জমিয়েছিলেন। গত ২৪-০৩-২০২১ ইং তারিখে বাসায় ফেরার কথা থাকলেও বাসায় ফেরে না নাজিম। অনেক খোঁজাখুজির পরও তার কোনো সন্ধান না পেয়ে ক্লান্ত হয়ে পড়ে স্ত্রী চায়না খাতুন। এ বিষয়ে এয়ারপোর্ট থানায় একটা সাধারণ ডায়েরি ও করা হয়।

গতকাল ২৯ এপ্রিল রোজ বৃহস্পতিবার সাংবাদিক সুজন কুমার শীল “বড়াইগ্রামের জোনাইলে স্বামীকে ফিরে পেতে স্ত্রীর আর্তনাদ” শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করার একদিন পর স্বশরীরে স্ত্রী-সন্তানের কাছে ফিরে আসে নাজিম উদ্দিন।

সত্যতা নিশ্চিত করতে নাজিমের কাছে গেলে প্রশ্নের উত্তরে নাজিম জানায়,বিদেশ থাকা অবস্থায় আমবিয়া নামের এক মহিলার সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক হয়। পরবর্তীতে তার সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হই। কিন্তু প্রথম বিয়ের কথা গোপন রেখে দ্বিতীয় বিয়ে করে নাজিম।

নাজিম আরো বলে,আমি বিদেশ থেকে এসে ঢাকার গাজীপুরের কাজিমপুর থানার চক্রবর্তী এলাকায় দ্বিতীয় স্ত্রীর সাথে ছিলাম। এখন সব কিছু ছেড়ে চলে এসেছি।

দ্বিতীয় স্ত্রী আমবিয়া জানায়,আমি তার প্রথম স্ত্রী সম্পর্কে কিছুই জানতাম না। যখন জানতে পেরেছি তখন তাকে একটু শায়েস্তা করেছি। পরে সে পালিয়ে চলে গেছে।

নাজিমের প্রথম স্ত্রী চায়না খাতুন বলেন,আমি স্বামীকে ফিরে পেয়েছি এতে আমি খুশি। কিন্তু আমি কোনোভাবেই নিশ্চিত হতে পারছি না সে এখানে থাকবে। তাই আগে ঋণ শোধ করতে হবে। তারপর অন্য সমাধান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *