মুহা. ফখরুদ্দীন ইমন, চৌদ্দগ্রাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি: সম্প্রতি দেশের বেসরকারি খাতের অন্যতম শীর্ষ আর্থিক প্রতিষ্ঠান সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেডের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) হিসেবে পদোন্নতি পেয়েছেন নুরুদ্দীন মোহাম্মদ ছাদেক হোসাইন। এর আগে তিনি একই ব্যাংকের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও প্রিন্সিপাল শাখার ব্যবস্থাপক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

নুরুদ্দীন মোহাম্মদ ছাদেক হোসাইন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগ থেকে অনার্স সহ মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন। পরবর্তীতে তিনি এমবিএ এবং ব্যাংকিং ডিপ্লোমা ডিগ্রী অর্জন করেন। ব্যাংকিং বিষয়ক প্রশিক্ষণের জন্য তিনি সুইজারল্যান্ড, তুরস্ক, মালয়েশিয়া এবং মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশ ভ্রমণ করেন।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় লোক প্রশাসন বিভাগ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন ও স্যার সলিমুল্লাহ হল অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য। এছাড়াও তিনি চৌদ্দগ্রাম ব্যাংকার্স সোসাইটির সহ-সভাপতি।

তিন দশকের চাকরি জীবনে তিনি ইসলামী ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক এবং সাউথইস্ট ব্যাংকের বহু শাখা এবং প্রধান কার্যালয়ে বিভিন্ন বিভাগের প্রধান হিসেবে সাফল্যের স্বাক্ষর রেখেছেন।

নুরুদ্দীন মোহাম্মদ ছাদেক কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার জঙ্গলপুর গ্রামের একটি উচ্চ শিক্ষিত ও সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মাওলানা আলী হোসেন (৯৩) এমএম, বিএ, বিএড কুমিল্লা আলিয়া মাদ্রাসার ভাইস প্রিন্সিপাল ছিলেন। তার চাচা মোহাম্মদ হোসেন (৯৫) এমএ ও এমএড উক্ত এলাকার শীর্ষস্থানীয় শিক্ষিত ব্যক্তি হিসেবে সুপরিচিত। তিনি প্রথম জীবনে পায়ের খোলা হাই স্কুলের হেডমাস্টার ও বাতিসা হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। পরে ফেনী পিটিআই’র সুপারিনটেনডেন্ট এবং সর্বশেষ চট্টগ্রাম পিটিআই’র সুপারিনটেনডেন্ট হিসেবে কর্মজীবন সমাপ্ত করেন।

নুরুদ্দীন মোহাম্মদ ছাদেক হোসাইন ব্যাংকিং পেশার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও সামাজিক উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড লেখালেখির সাথে জড়িত। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি সদালাপী বন্ধুবৎসল সহজ-সরল জীবনাচার অনুসরণ করে থাকেন। এছাড়াও তিনি ব্যাংকিং বিষয়ক বিভিন্ন আলোচনা ও টক-শোতে অংশগ্রহণ করেন। এসব আলোচনায় তার বাগ্মিতা ও পান্ডিত্ব সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

ব্যক্তি জীবনে তিনি দুই কন্যা ও এক পুত্র সন্তানের পিতা। তার বড় মেয়ে সম্প্রতি মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি থেকে বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ বিএসসি ডিগ্রী অর্জন করেছেন। একাধিকবার ডিনস অ্যাওয়ার্ড এবং স্কলারশিপ নিয়ে চূড়ান্ত পরীক্ষায় ৪ এর মধ্যে ৩.৮৯ পেয়েছে। দ্বিতীয় মেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ছেলে এ বছর এসএসসি পরীক্ষার্থী।

এই পদোন্নতিতে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে নুরুদ্দীন মোহাম্মদ ছাদেক হোসাইন বলেন, প্রত্যেকটি পদোন্নতি পদায়ন একটি নতুন চ্যালেঞ্জের সৃষ্টি করে। এই চ্যালেঞ্জ সাহসিকতার সাথে মোকাবেলা করাই প্রকৃত সফলতা। সবার দোয়া ও ভালোবাসায় আমি যাতে এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে পারি সেই দোয়া কামনা করছি।

নিজ উপজেলা ও গ্রাম সম্পর্কে তিনি বলেন, কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা অসংখ্য আলোকিত মানুষ সৃষ্টি করেছে, তাদেরকে দেখে দেখেই আমরা বড় হয়েছি এখনো দেশের আনাচে-কানাচে চৌদ্দগ্রাম এর অনেক কৃতি সন্তান তাদের কর্মকাণ্ড আলোকিত করে রেখেছেন, তারাই আমার অনুসরণীয় অনুকরণীয়। চৌদ্দগ্রাম আমাকে সবসময় আকর্ষণ করে। আমাদের গ্রাম প্রত্যন্ত এলাকায় কিন্তু এই গ্রামের নয়নাভিরাম দৃশ্য সুইজারল্যান্ড থেকেও সুন্দর মনে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *