(তালা) সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ

সাতক্ষীরার তালায় মুজাহিদুল ইসলাম (৩২) নামের এক ভুয়া এনএসআই কর্মকর্তা আটক হয়েছে। মঙ্গলবার (২৫ মে) সকালে তালা উপজেলার সুজনসাহা এলাকায় প্রতারণার সময় সাতক্ষীরা এনএসআই তাকে আটক করে।

আটককৃত মুজাহিদুল খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার নরনিয়া গ্রামের আরশাফ আলী মোড়লের ছেলে। তার বিরুদ্ধে চাকরি, বাড়ি নির্মাণ, বিদেশ ও হজ্জ্বে পাঠানোর কথা বলে বিভিন্নভাবে প্রতারণা করে ৪০ লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

সাতক্ষীরা এনএসআই অফিস সুত্রে জানা গেছে, মুজাহিদুল ইসলাম একজন পেশাদার প্রতারক। সে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন এলাকায় প্রবেশ করে সাধারণ মানুষকে ভুল বুঝিয়ে লোভে ফেলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। তার ব্যবহৃত মোবাইল থেকে অনেক গোপন তথ্য পাওয়া গেছে বলে এই সূত্রটি জানান। তবে তদন্তের সাথে সেটি জানাতে অস্বীকার করেন এই কর্মকর্তা।

উপজেলার ইসলামকাটি গ্রামের নেছার আলী সরদারের ছেলে আলতাফ হোসেন জানান, এনএসআই পরিচয় দিয়ে প্রায় এক বছর ধরে চাকরী, বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়া, বিদেশ ও হজ্জ্বে পাঠানোর কথা বলে সে নিজে, তার ভাই শাহিনুর ও ইসলামকাটি গ্রামের দেলবার আলীর ছেলে শফিকুলের নিকট থেকে চার কিস্তিতে ১৩ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। এছাড়া ডুমুরিয়া এলাকার রোস্তম মোল্যার ছেলে হালিম মোল্যা, ডুমুরিয়ার কুলবাড়িয়া গ্রামের গফুর শেখের ছেলে মোস্তফা কামাল, একই গ্রামের এজাহার আলীর ছেল গণি মোল্যার নিকট থেকে প্রায় ২৮ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক মুজাহিদুল। এ সময় ভুক্তভোগীরা প্রতারক মুজাহিদুলের ন্যায় বিচার দাবি করেন।

তালা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী রাসেল জানান, তালার ইসলামকাটি এলাকা থেকে বিভিন্নভাবে প্রতারণা করে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে প্রায় ৪০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে মুজাহিদুল। মঙ্গলবার সকালে সুজনশাহা এলাকায় প্রতারণা করে টাকা নেওয়ার সময় এলাকাবাসির সহযোগিতায় সাতক্ষীরা এনএসআই তাকে আটক করে তালা থানা পুলিশে সোপর্দ করেন। পরে তাকে সাতক্ষীরা ডিবিতে হস্তানন্তর করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *