রাশিদুল ইসলাম,গুরুদাসপুর প্রতিনিধিঃ

নাটোরের গুরুদাসপুর পৌর শহরের পার-গুরুদাসপুর মহল্লার নূরজাহান বেগমের নামের অর্থ জগতের আলো হলেও সে আলো তার জীবনকে আলোকিত করতে পারেনি। ” অন্ধকারে কাটছে নুরজাহানের জীবন” এই শিরোনামে ১২ই নভেম্বর দেশের বিভিন্ন জাতীয় স্থানীয় ও অনলাইন পত্রিকায় একটি সংবাদ প্রকাশ হয়। সেই সংবাদটি নজরে আসে গুরুদাসপুরের ইউএনও মো.তমাল হোসেনের। তৎখনাত নুরজাহানের ঠিকানা খুজে বের করে খাবার ও নগদ অর্থ পৌছে দিয়েছেন ইউএনও। শুক্রবার সন্ধায় উপজেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় নুরজাহানের বাড়িতে ওই খাবার পৌছানো হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তমাল হোসেন জানান, নুরজাহানের বিষয়ে সংবাদ পাওয়ার পরপরই উপজেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনার তার বাড়িতে খাবার পৌছানো হয়েছে এবং নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়াও তাকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল সময় সার্বিক সহযোগিতা করা হবে।

উল্লেখ্য, অভাব অনটনের সাথে যুদ্ধ করেই কাটছে নূরজাহানের প্রতিটি দিন। ৬৫ বছর বয়সে স্বামী আয়জুদ্দীনকে হারিয়েছেন ৩৫ বছর আগেই। বিল থেকে শাপলা-শালুক তুলে স্কুলের গেটে বিক্রির সামান্য আয় দিয়ে খেয়ে না খেয়ে চলছিলো বিধবা নূরজাহান এর অভাবের সংসার।

Leave a Reply