মোঃ আবু তৈয়ব. হাটহাজারী ( চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি :

ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রের জমি দখল করে দোকান নির্মাণের পরিকল্পনা করেছিলেন চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মো. আলী। এজন্য তিনি আশ্রয় নেন একটি কৌশলের।

জানা গেছে, স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ওই জায়গায় সীমানা প্রাচীর নির্মাণের জন্য একটি বরাদ্দ হয়। আর প্রকল্প কমিটির সভাপতি হওয়ার সুবাদে ওই ইউপি সদস্যের তত্ত্বাবধানে কাজটি শুরু হয়। এই সুযোগে বেশকিছু সরকারি জায়গা বাদ দিয়ে তিনি সীমানা নির্ধারণ করে দেয়াল নির্মাণের কাজ শুরু করেন।

পরে বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় কয়েকজন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। এভাবে বিষয়টি হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও)নজরে আসে।

স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ওই জায়গাটি ইউএনও সরকারি সার্ভেয়ার দিয়ে পরিমাপ করে দেখতে পান, প্রায় দুই হাজার ৪০০ বর্গফুট সরকারি জায়গা বাদ দিয়ে ইউপি সদস্য সীমানা দেয়াল নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছিলেন। তারপর সীমানা দেয়ালটি উচ্ছেদ করে আরেকটি দেয়াল নির্মাণের পরিকল্পনা করা হয়। এভাবেই সরকারি জায়গা দখল মুক্ত করে শনিবার (২৪ এপ্রিল) নতুন নির্মাণ করা সীমানা দেয়ালটি উদ্বোধন করা হয়।

এ বিষয়ে হাটহাজারী ইউএনও রুহুল আমিন বলেন, গত বছরের অক্টোবরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের একটি পোস্টের মাধ্যমে ইউপি সদস্যের সরকারি জায়গা দখলচেষ্টার বিষয়টি আমার দৃষ্টিগোচর হয়। তারপর আমি সার্ভেয়ার দিয়ে পরিমাপ করে দখলের সত্যতা পাই। সঙ্গে সঙ্গে দেয়ালটি উচ্ছেদ করে নতুন আরেকটি দেয়াল নির্মাণের পরিকল্পনা করা হয়।

তিনি আরও বলেন, এভাবেই স্বাস্থ্যকেন্দ্রের বাদ পড়া দুই হাজার ৪০০ বর্গফুট জায়গা নিয়ে নতুন সীমানা দেয়ালটি শনিবার বিকেলে উদ্বোধন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *