মোঃ আবু তৈয়ব. হাটহাজারী ( চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি :

চট্রগ্রাম জেলার ফটিকছড়ি উপজেলার ভূজপুর থানাধীন সুয়াবিলে হালদা অবৈধ ভাবে নদীর পাড় কাঁটার সময় মাটি চাপা পড়ে মো. সাকিল (২০) নামের এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (৯ এপ্রিল) উপজেলার সুয়াবিল ইউনিয়নের বারমাসিয়া সিকদার পাড়া এলাকা প্রকাশ একখুলিয়া বালি মহালের পাশে এ ঘটনা ঘটে৷

নিহত সাকিল নাজিরহাট পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম লাল মাটিয়া গ্রামের আব্দুৃল করিম সওদাগর বাড়ীর মৃত বেলালের প্রথম পুত্র।

স্থানীয়রা জানান, সাকিল পেশায় একজন শ্রমিক। তিনি সেখানে দৈনিক মজুর হিসেবে মাটি কাটার কাজ করতো। প্রতিদিনের মতো শুক্রবার সকালে বেলচা দিয়ে হালদা পাড়ের মাটি কেটে চাঁদের গাড়ীতে উত্তোলনের সময় নদী পাড়ের বড়ো একটি অংশ হঠাৎ ভেঙ্গে তার গায়ের উপর পড়ে। খবর পেয়ে স্থানীয়রা উদ্ধার করতে গেলে ততক্ষনে সে প্রাণ হারান। পরে ভূজপুর থানার পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

জানা যায়, ‘দীর্ঘদিন ধরে ওই এলাকায় রশিদ ও আলতাফ নামের দুই ব্যাক্তির নেতৃত্বে একটি সংঘবদ্ধ চক্র অবৈধ ভাবে হালদার পাড়ের মাটি ও চরের বালি কেটে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে ভূজপুর থানার ওসি শেখ আব্দুল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এখনো কোন মামলা হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *