মিরু হাসান বাপ্পী
বগুড়া জেলা প্রতিনিধি

বগুড়ার আদমদীঘিতে বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে গিয়ে নেসকোর প্রকৌশলী ও কর্মচারীদের লাঞ্চিত মামলার ১১দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ কোন আসামী গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়নি।
এর আগে গত ২১ নভেম্বর দুপুরে সান্তাহার নেসকো বিভাগের উপ-সহকারি প্রকৌশলী আল মামুনের নেতৃত্বে তার দল পিকআপ গাড়ি যোগে উপজেলার দমদমা গ্রামে বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকা গ্রাহকদের বাড়ির বিদ্যুসংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে যান। তারা বিভিন্ন বাড়ির বিদ্যুসংযোগ বিচ্ছিন্ন করে ফেরার পথে ঐ গ্রামের মুক্তার মল্লিক তার অপর লোকজন নিয়ে বিদ্যুত বিভাগের গাড়ির পথরোধ করে চালক আব্দুল্লাহ আল মামুনকে টানা হেঁচড়া করে নামিয়ে মারপিটে লাঞ্চিত করে।

এসময় অপর কর্মকর্তা কর্মচারীদের মারপিটে আহত করে বিদ্যুতবিলের কাগজসহ বিভিন্ন মূল্যবান সামগ্রী ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় ওই রাতেই সান্তাহার নেসকো লিঃ-এর বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগের সহকারি প্রকৌশলী আতিকুর রহমান বাদি হয়ে আদমদীঘির দমদমা গ্রামের আনছার আলী মল্লিকের ছেলে মুক্তার মল্লিকৎ এফাজ উদ্দিনের ছেলে রিপন ও তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে হুমায়ুন কবির রুবেলসহ ১০জনের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত ৭জনকে আসামী করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এদিকে মামলা দায়েরর ১১ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ অদ্যবধি কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি। মামলার তদন্তকারি উপ পরিদর্শক আবু হাসান জানায়, আসামীরা আত্মগোপনে থাকায় গ্রেফতারে বিলম্ব হচ্ছে। তবে গ্রেফতারে তৎপরতা চলছে।

Leave a Reply